Spread the love

বোয়ালমারী প্রতিনিধি: ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার চতুল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে এসএসসি প্রোগ্রাম উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষায় প্রক্সি দিতে এসে ধরা খেয়েছে ৮জন। শুক্রবার গণিত পরীক্ষার দিন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ঝোটন চন্দ আকস্মিক কেন্দ্র পরিদর্শন করতে গিয়ে তাদের হাতে নাতে ধরেন। পরে তিনি (ইউএনও) সন্ধ্যার আগে নিজ কার্যালয়ে আদালত বসিয়ে ওই ৮জনকে মোট এক লাখ ৬৫ হাজার টাকা জরিমানা ও তাদের পরীক্ষা থেকে বহিস্কার করেন। কেন্দ্র পরিদর্শনের সময় নকল করার অভিযোগে আরও তিন পরীক্ষার্থীকে বহিস্কার করা হয়।
আদালত সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার (০৭.০২.২০) চতুল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের এসএসসি প্রোগ্রামের গণিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছিল। ইউএনও ঝোটন চন্দ সকাল ১১ টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে ওই ৮জনকে আটক করে পাবলিক পরীক্ষাসমূহ (অপরাধ) আইন ১৯৮০ এর ১১ ধারা অনুযায়ী এ দন্ড প্রদান করেন।
দন্ডপ্রাপ্তরা হলো, মায়ের পরীক্ষা দিতে আসা মেয়ে সুবর্ণাকে ২০ হাজার, বোনের পরীক্ষা দিতে আসা লিমাকে ২০ হাজার এবং ভাইয়ের পরীক্ষা দিতে আসা ফয়সাল শেখকে ১৫ হাজার, শুভ সরকারকে ২৫ হাজার, রাজিব খানকে ২৫ হাজার, নাইম শেখকে ২৫ হাজার, বাবর আলীকে ২৫ হাজার, সোহাগ কীর্ত্তনিয়াকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। ওই কেন্দ্র সচিব স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো মনির হোসেনের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বরাবর সুপারিশ করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ঝোটন চন্দ। এ ব্যাপারে কেন্দ্র সচিব মো. মনির হোসেন মোবাইলে বলেন, প্রক্সি পরীক্ষার্থীদের ব্যাপারে আগেই সতর্ক করা হয়েছিল।


Spread the love