সকাল ৯:৪৯ । ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ । ১৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ । ৬ই শাওয়াল, ১৪৪২ হিজরি ।

শিরোনামঃ
আশাশুনির পাইথালী বাজারে বিসমিল্লাহ স্টোরে পন্যের এমআরপি থেকে বেশি দামে বিক্রির প্রমান মিলেছে রূপসা নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে সাংবাদিকদের মত বিনিময় ফেরি ঘাটে নেই যাত্রী ভোগান্তি,যাত্রীদের নেই স্বাস্থ্য বিধি মানার বালাই  মধুখালীতে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালন ফরিদপুরে আশাশুনিতে এক ডজন মাদক মামলার আসামীর ওসি’র নিকট আত্নসমর্পন  আশাশুনিতে  স্বপ্ন ছোঁয়ার প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন আশাশুনি উপজেলা সড়কে দুরাবস্থা দেখার কেউ নাই আশাশুনিতে গৃহহীনদের গৃহ ও জমি প্রদান যথাযথ ভাবে হচ্ছে: উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তাকিম আশাশুনি থানা পুলিশের অভিযানে আটক ৪ জেলা যুবলীগের আহ্বায়ককে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা বিনিময় জেলা রেন্ট এ কার ইউনিয়ন নেতাদের ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য : মধুখালীতে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধুর আত্মহত্যা রূপসায় কৃষকলীগ নেতাকর্মীদের মাঝে খাদ্য সহয়তা ও ঈদ সামগ্রী বিতরণ জেলা পুলিশের প্রেস ব্রিফিং ঈদের পরদিনও যাত্রীর চাপ দৌলতদিয়া ফেরি ঘাটে বাবা ও ছেলে দু’জন গেলেন বাঘের পেটে কন্ঠশিল্পী রশীদ আহমেদ তিতু’র প্রথম মৃত্যু বাষির্কী আজ ফরিদপুর জেলা যুবলীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় আব্দুর রহমান‘ শেখ হাসিনার মত বিচক্ষণ নেতৃত্ব আছে বলেই আমরা পিট বাঁচিয়ে চলতে পারছি শেখ হাসিনার সরকার দেশ থেকে মাদক, জঙ্গী, সন্ত্রাস ও দুর্নিতির মূলৎপাটন করতে সর্বদা বদ্ধ পরিকর :রূপসায় জুম কনফারেন্সে অব্দুস সালাম মূর্শেদী আলফাডাঙ্গায় সাংবাদিক সেকেন্দার আলমের উপর সন্ত্রাসী হামলার মামলায় থানায় ৪ জন গ্রেফতার! আদালতে প্রেরণ রূপসায় অধ্যাপক চাইনিজের উদ্যোগে কর্মহীন মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী, ঈদ পোষাক এবং নগদ অর্থ বিতরণ  দৌলতদিয়া থেকে পণ্য পরিবহনের গাড়ীতে বাড়ী পথে যাত্রীরা  রাজবাড়ীতে এমপি জিল্লুল হাকিমের ঈদ উপহার সামগ্রী পেল ১২ হাজার পরিবার  খুলনা সদর থানার এসআই আবু সাঈদের বিরুদ্ধে ব্যবসায়ী হয়রানীর অভিযোগ ভৈরব নদীতে নেঙ্গর করা তেলবাহী জাহাজ থেকে নিয়মিত তেল চুরি হচ্ছে দিঘলিয়ায় বিএনপি নেত্রীর সুস্থতা কামনায় অসহায় মানুষের মাঝে ঈদ উপহার প্রদান দিঘলিয়ায় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে জেলা আওয়ামিলীগ সম্পাদকের ঈদ উপহার প্রদান ফরিদপুর জেলা আওয়ামীলীগের ঈদ উপলক্ষে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ ঈদ বাজার ঘুরে মাক্স বিতরণ করছেন বোয়ালমারী পৌর মেয়র ১২ নং ওয়ার্ড নাগরিক কমিটির উদ্যোগে মেয়র অমিতাভ বোস এর পক্ষ থেকে হতদরিদ্র দের মধ্যে ঈদের শুভেচ্ছা বিতরণ

সরকারি রাজেন্দ্র কলেজের গনিতের ৩ মেধাবির সেরা হওয়ার গল্প

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


শোভন এহসানঃ সরকারি রাজেন্দ্র কলেজের বিজ্ঞান অনুষদের এ এফ মুজিবুর রহমান ফাউন্ডেশন কর্তৃক স্বর্ন পদক ও বৃত্তি প্রদান ২০২০ এ পেয়েছেন গনিত বিভাগের ৩ মেধাবি মুখ।
এ এফ মুজিবুর রহমান ফাউন্ডেশন থেকে শুধু মাত্র গনিত বিভাগের সেরা শিক্ষার্থীদের কে স্বর্নপদক দিয়ে থাকে।এটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়,খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়,রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়,সিলেট বিশ্ববিদ্যালয় সহ ফরিদপুর সরকারি রাজেন্দ্র কলেজের গনিত শিক্ষায় কৃতিত্বের জন্য এই ফাউন্ডেশন শিক্ষার্থীদের জন্য স্বর্ন পদক ও বৃত্তি প্রদান করে থাকে গনিতের মেধাবী মুখদের কে।স্বর্ণপদক পাওয়ার নিয়মটা বেশ কঠিন। সম্মান পরিক্ষায় নূন্যতম সিজিপিএ থাকতে হয় ৩.৭৫ এবং তা পেতে হবে কোনো মান উন্নয়ন পরিক্ষা ছাড়াই।কীভাবে গনিত বিভাগ থেকে পেলেন তারা এ সম্মাননা?তাদের মুখ থেকেই শোনা যাক সে গল্প।

সুব্রত কুমার পাল।ছোট বেলা থেকেই তার ভালো লাগতো অংক কষতে।গনিত বিভাগে সুযোগ পেয়ে তার প্রথম ইচ্ছা ছিলো গনিত নিয়ে ভালো কিছু করার।তাই নোট করে পড়তাম, ক্লাসেও ছিলাম নিয়মিত।শুধু কি এভাবেই সাফল্য ধরা দিয়েছে তার হাতের মুঠোই?মোটেই না।এ সাফল্যের পিছনে বিরাট অবদান আমার পিসিমার।রাজেন্দ্র কলেজে অনার্সে ভর্তি হওয়ার পর পিসিমার বাসায় থাকতাম।পিসিমা সর্বোচ্চ কেয়ার নিতো পড়াশোনার ব্যাপারে।পিসির কষ্ট বৃথা যায়নি।বিএসসি অনার্স এ সিজিপিএ ৩.৮০ পেয়ে বিভাগের প্রথম স্থান অর্জন করেছেন তিনি, তার চোখে ভাসছে বিসিএস শিক্ষা ক্যাডার হয়ে গনিতের আলো ছড়িয়ে দিতে।

এমএসসি তে গনিতে সিজিপিএ ৩.৯৪ প্রাপ্ত বিভাষ সেন বলছিলেন গনিতের প্রতি তার ভালোবাসার কারন ‘যুক্তি দিয়ে বুঝলেই হয় গনিত,মুখস্ত করার বালাই নেই।অন্য বিষয়ের চাইতে গনিতের মজাটা এখানেই।’অনেক সংগ্রাম করে এত দূর আসতে হয়েছে তাঁকে।সফল হওয়ার প্রবল ইচ্ছায় বয়ে এনেছে সাফল্য।বিভাস সেন স্বপ্ন দেখতেন বাবার জন্য কিছু করে দেখানোর।এ সম্মাননা পেয়ে বাবা আজ অনেক খুশি।’বলছিলেন তিনি।

সোহেল রানার গল্পটা বেশ মজার ‘ স্কুলে ভালো ছাত্র ছিলাম,অথচ গনিতে উৎসাহ ছিলো না তেমন।ভাবতাম বিজ্ঞান মানেই ডাক্তার ইন্জিনিয়ার হওয়া,অন্য কোন বিষয়ে পড়া মানেই বেকারের খাতায় নাম লেখানো।কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সুযোগ না পাওয়ার পর ঠাঁই মিলল রাজেন্দ্র কলেজের গনিত বিভাগে। এত ভালো একটা বিভাগে পড়ার সুযোগ পেয়েও প্রথম দিকে অত বেশি সিরিয়াস ছিলাম না।ভালোবাসতাম সাহিত্য উদাস হতাম লালন গীতির সুরে।দ্বিতীয় বর্ষে উঠে পড়াশোনাটা সত্যি সত্যি শুরু করি।সব মিলিয়ে মাস্টার্স শেষ করি ৩.৯২ পেয়ে।
ব্যক্তিস্বাধীনতা আছে,সে ধরনের কোন প্রকল্পে কাজ করার ইচ্ছা তাঁর।

রাজেন্দ্র কলেজের গনিত বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শহীদুর রহমান বলেন,রাজেন্দ্র কলেজের গনিত বিভাগটি সেশনজট থেকে মুক্ত।গনিতের পাশাপাশি তাত্ত্বিক বিষয়ের ওপর ও জোর দিতে হয় অনেক।শিখতে হয় প্রোগ্রামিং।শিক্ষকতা ও গবেষনার পাশাপাশি গনিতের অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের চাকরির চাহিদাও অনেক বেশি।


Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *