Spread the love


নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ফরিদপুরে প্রতিদিন বাড়ছে করোনা রোগির সংখ্যা। গত দুদিনে ৬জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে আজ দুই নারীসহ তিনজনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। গতকাল এক ইমাম সহ তিনজনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। এনিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাড়ালো ২১ জনে।
ফরিদপুর মেডিকেল কলেজে স্থাপিত করোনা শনাক্তকরণ ল্যাব সুত্র জানায়, আক্রান্তদের মধ্যে ফরিদপুর সদর উপজেলার শহরের মোল্লা বাড়ী সড়ক এলাকার ২০ বছরের এক নারী ও বোয়ালমারী চতুল এলাকার ৪০ বছরের এক নারী রয়েছে। এছাড়া চরভদ্রাসন উপজেলার বি.এস.ডাংগী (স্বাধীনতা চত্তর) এলাকায় ২৪ বছর বয়সী এক যুবকের করোনাভাইরাস ধরা পরেছে। সে সিলেট থেকে ঢাকা দোহারে ১৫ দিন অবস্থান করে গত রবিবার বাড়ীতে আসে। এ নিয়ে চরভদ্রাসনে আক্রান্তের সংখ্যা দাড়ালো দুই জনে।
প্রশাসনের তরফ থেকে এরই মধ্যে এই তিনজন আক্তান্তদের বাড়ী লকডাউন করা হয়েছে এবং পরিবারের সদস্যদের নমুনা সংগ্রহ করার কাজ চলছে বলে জানাগেছে।
ফরিদপুরের সিভিল সার্জন মো. সিদ্দিকুর রহমান জানান, নতুন করে আরো তিনজন শনাক্ত হওয়ায় জেলায় মোট করোনা রোগির সংখ্যা দাড়ালো ২১ জনে। তিনি বলেন আজ ৬৫ জনের নমুনা পাঠানো হয়। এর মধ্যে ৪জনের শরীরে করোনা ভাইরাস ধরা পড়ে। এই ৪জনের মধ্যে একজন পুরানো আক্তান্ত রয়েছে। যার নতুন করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছিলো। তারও আবার করোনা পজিটিভ এসেছে। সব মিলিয়ে জেলায় এ পর্যন্ত ২১ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস ধরা পড়ে। এর মধ্যে অবশ্য গত বৃহস্পতিবার করোনা আক্রান্ত তিনজন সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরে গেছেন বলে তিনি জানান।


Spread the love