Spread the love

বোয়ালমারী প্রতিনিধি : ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলায় কথা কাটাকাটির জের ধরে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে সুমাইয়া বেগম (২০) নামে এক নারী নিহতের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল মঙ্গলবার (০৫.০৫.২০) সকাল ১০টায় চতুল ইউনিয়নের সূর্যদিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। বিকেলে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই নারীর মৃত্যু হয়। দেড় বছর আগে একই ইউনিয়নের শ্রীনগর গ্রামের ছামাদ শেখের ছেলে আশিক শেখের সাথে ওই নারীর বিয়ে হয়।
পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, সূর্যদিয়া গ্রামের আবু কাশেম ও ওদুদ মোল্লাদের সাথে সুমাইয়ার পিতা মুরাদ শেখের জমিজমা নিয়ে দ›দ্ব চলছিল। মঙ্গলবার সকালে ওদুদ মোল্যার লোকজন ক্ষেত থেকে কলা গাছের চারা তুলে রাখে। মুরাদ শেখের বাড়ির লোকজন সেই চারা নিয়ে যায়। এ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে প্রতিপক্ষের লোকজন ধারালো অস্ত্র দিয়ে সুমাইয়ার পেটে কোপ মারে। মারাত্বক আহত অবস্থায় তাকে বোয়ালমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে সেখান থেকে তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকেলে সে মারা যায়।
বোয়ালমারী থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আমিনুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এলাকায় পরিস্থিতি এখন শান্ত আছে। পুলিশ মোতায়েন রয়েছে এবং মধুখালী সার্কেলের সিনিয়র এএসপি মো. আনিসুর রহমান লালনসহ তিনি এখন পর্যন্ত ঘটনাস্থলেই আছেন। এ ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


Spread the love