Spread the love


বোয়ালমারী প্রতিনিধি : ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে শিলা বৃষ্টিতে পাট ও ধান ক্ষেতের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। শিলা বৃষ্টিতে পাট ক্ষেতের আগা ছিড়ে যাওয়ায় চরম ক্ষতিতে পড়েছে পাট চাষীরা।
রোববার (১০.০৫.২০) দুপুরে উপজেলা কৃষি বিভাগ সূত্রে জানা যায়, চলতি মৌসুমে এ উপজেলায় ১৪ হাজার ৮০০ হেক্টর জমিতে পাট চাষ ও ৪ হাজার ৩০০ হেক্টর জমিতে ধান চাষ হয়েছে। শিলা বৃষ্টিতে ধানের তেমন ক্ষতি না হলেও পাটের ক্ষতি হয়েছে ব্যাপক। উপজেলার সাতৈর ইউনিয়নের কাদিরদী মাঠ, মহিশালা, বেড়াদী, ডোবরা, সাতৈর, কানখরদি, বাসুদেবপুর, ঘোষপুর ইউনিয়নের ভীমপুর মাঠ, ঘোষপুর, গোহাইলবাড়ি ও ময়না ইউনিয়নের আষাড়িয়া বিলসহ বিভিন্ন স্থানে শিলা বৃষ্টিতে ধান পাটের আগা ছিড়ে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। শনিবার দিবাগত রাতে কাল বৈশাখী ঝড় ও শিলা বৃষ্টিতে এ অঞ্চলে প্রায় ৬৬৫ হেক্টর জমির পাট ক্ষেত এবং আংশিক ধান ক্ষেতের ক্ষতি হয়েছে।
বেড়াদী গ্রামের কৃষক মফিজার মোল্যা বলেন, ৪০০ শতাংশ জমিতে পাট ক্ষেত ছিল তার। শিলা বৃষ্টিতে পাটের আগা পড়ে যাওয়া শুধু গোড়া দাড়িয়ে রয়েছে। এখন এ জমিতে আর কোন ফসল চাষ করা সম্ভব না।
সাতৈর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. মজিববর রহমান বলেন, তার ইউনিয়নের একটি পাটের জমিও ভালো নেই। পাটচাষীরা সর্বশান্ত হয়ে গেছে। ঝড়ে পড়ে গেছে অনেক কাঁচাঘর, উপড়ে গেছে প্রায় ৫০টি টিনের ছাপড়া ও টিনের ঘর।
উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা প্রীতম কুমার হৈড় বলেন, সকাল থেকে সরেজমিনে ঘুরে ঘুরে সকল পাটক্ষেত পরিদর্শন করেছেন। ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের তালিকা ও ক্ষয়-ক্ষতির পরিমান নির্ধারন করা হচ্ছে। যা উর্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হবে। এই মুহুর্তে জমি ভেঙ্গে নতুন করে পাট চাষ করা সম্ভব না। তবে কৃষকরা আগাম রোপা আমন চাষ করতে পারে।


Spread the love