Spread the love

বি এম বাবলুর রহমান সাতক্ষীরা: সাম্প্রতিক ঘূর্ণিঝড় আম্পানের দুই মাস পূর্তির পরও ভেঙে যাওয়া বেড়িবাঁধ বাঁধতে না পারার ব্যর্থতার প্রতিবাদ ও কোভিড-১৯ পরীক্ষার পিসিআর ল্যাবসহ ৫০০ শয্যার সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পূর্ণাঙ্গভাবে চালু করার দাবিতে মানববন্ধন করেছে সাতক্ষীরা জেলা নাগরিক কমিটি।
সোমবার (২০ জুলাই) সাতক্ষীরা কালেক্টরেট চত্ত্বরে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন জেলা নাগরিক কমিটির আহবায়ক আনিসুর রহিম।
মানববন্ধনের বক্তারা হাজার হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পূর্ণাঙ্গভাবে চালু না করে সাধারণ মানুষের চিকিৎসা সেবা বেসরকারি ক্লিনিক ও হাসপাতাল নির্ভর করে তোলার ষড়যন্ত্র প্রতিহত করার আহবান জানান।
বক্তারা সরকারি হাসপাতাল থেকে আর কোন রোগীকে যাতে বেসরকারি ক্লিনিক ও হাসপাতালে পাঠানো না হয় সে ব্যাপারে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।
মানববন্ধনে বক্তারা প্রাকৃতিক দুর্যোগ, নদী ভাঙন ও জলাবদ্ধতা কবলিত উপকূলীয় এলাকাকে দুর্যোগ প্রবণ এলাকা ঘোষণা, উপকূলীয় এলাকার উন্নয়নে পৃথক অথরিটি গঠন, অভিবাসন বন্ধ করতে বিশেষ বরাদ্দসহ অর্থনৈতিক কর্মকান্ড পরিচালনা, ভাঙন কবলিত ও জলাবদ্ধ এলাকার মানুষের জন্য স্থায়ী রেশনের ব্যবস্থা এবং ডেল্টা ও ব্লু প্লানের আওতায় টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণসহ টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করার দাবি জানান।
মানববন্ধনের বক্তারা জরুরি ভিত্তিতে সাতক্ষীরা পৌরসভাসহ পার্শ্ববর্তী এলাকায় জলাবদ্ধতা নিরসনে পৌর কর্তৃপক্ষসহ প্রশাসনের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, অধ্যক্ষ আবু আহমেদ, অধ্যক্ষ আব্দুল হামিদ, আবুল কালাম আজাদ, সুধাংশু শেখর সরকার, আজাদ হোসেন বেলাল, আনোয়ার জাহিদ তপন, প্রভাষক ইদ্রিস আলী, মাধব চন্দ্র দত্ত, এড. আল মাহামুদ পলাশ, মোহন কুমার মন্ডল, নিত্যানন্দ সরকার, জ্যোৎন্সা দত্ত, মিজানুর রহমান, শেখ সিদ্দিকুর রহমান, প্রভাষক তপন কুমার শীল, এড. মনির উদ্দিন, এড. প্রবীর কুমার মুখার্জী, সাংবাদিক মুনসুর রহমান, কওসার আলী, আবুল কালাম আজাদ, আব্দুস সামাদ, আব্দুস সাত্তার, মো. রোকনুজ্জামান সুমন, ইয়ার আলী, আলী নুর খান বাবলু প্রমুখ।
মানববন্ধন থেকে টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণ ও জলাবদ্ধতা নিরসনসহ সাতক্ষীরা জেলা নাগরিক কমিটির ২১ দফা বাস্তবায়নের দাবিতে পক্ষকালব্যাপী গণস্বাক্ষর সংগ্রহ অভিযান ও প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি পেশের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।


Spread the love