Spread the love

ফ,ম,আইয়ুব আলী, রুপসা প্রতিনিধিঃ বাংলাদেশ পানি সম্পদ মন্ত্রনালয়ের উপ সচিব এএইচএম আনোয়ার পাশা বলেছেন প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রতি প্রকল্প ছিল নদী খনন। যা আজ সমাপ্তি হয়েছে। নদী এবং আভ্যন্তরীন খাল খননের কারনে জলাবদ্ধতা হ্রাস পেয়েছে। ফসল উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে। ব্যবসায়ীদের জলপথে আমদানী, রপ্তানি সহজ হয়েছে। নদী এলাকার মানুষ অর্থনৈতিক ভাবে আজ স্বাবলম্বী। এ কারনে নদীর দু’পাড়ে বনায়ন ও সবুজ বেষ্টনীর সৃষ্টি হলে এ দেশের মানুষ উপকৃত হবে এ কথা ভেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১ কোটি বৃক্ষের চারা রোপন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। তার ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড নদীর দুপাড়ে খোলা জায়গায় ১ লক্ষ বৃক্ষ রোপন কর্মসূচি শুরু করেছে। এ কর্মসূচি সফল হলে যেমনি ভাবে মানুষ অর্থনৈতিক ভাবে স্বাবলম্বী হবে তেমনি ভূমিদস্যুদের কবল থেকে নিরাপদ থাকবে সরকারী ভূমি। তিনি ২৭ আগষ্ট বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড খুলনার পউব, খুলনা কর্তৃক আয়োজিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে বৃক্ষরোপন কর্মসূচির উদ্বোধন কালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন দক্ষিন-পশ্চিম অঞ্চল বাপাউব, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো: রফিক উল্লাহ, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী যশোর পওর সার্কেল সৈয়দ হাসান ইমাম পিইঞ্জ, নির্বাহী প্রকৌশলী, খুলনা পওর বিভাগ মো: আশরাফুল আলম, রূপসা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ কামাল উদ্দীন বাদশা, তেরখাদা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শেখ শহিদুল ইসলাম, রূপসা উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাসরিন আক্তার, তেরখাদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিমুল কুমার সাহা, উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী শেখ হুমায়ুন কবীর, উপ-সহকারী প্রকৌশলী আ: সোবহান হাওলাদার, তেরখাদা উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান মো: সারাফাত হোসেন মুক্তি, ইউপি সদস্য সজিব আহম্মেদ মোল্লা প্রমুখ।


Spread the love