Spread the love

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ফরিদপুর সদর উপজেলাধীন সিএন্ডবি ঘাট এলাকায় পদ্মা নদীতে ড্রেজার বসিয়ে অবৈধভাবে বালি উত্তোলন করছিলো প্রভাবশালী মহল। স্থানীয়দের অভিযোগের ভিত্তিতে আজ ২৮/০৮/২০২০ শুক্রবার বার দুপুরে ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকারের নির্দেশনায় সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুম রেজা কঠোর অভিজান পরিচালনা করেন। প্রশাসনের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায় ড্রেজার কতৃপক্ষ। ঘটনাস্থলে একটি ড্রেজার বিনষ্ট করে দেওয়া হয় এবং ড্রেজার বেশ কিছু মালামাল জব্দ করা হয়।

স্থানীয়রা জানান দীর্ঘদিন ধরে প্রকাশ্যে অবৈধভাবে নদীতে ড্রেজার বসিয়ে বালি উত্তোলন করে আসছিল প্রভাবশালীরা। বিভিন্ন সময় স্থানীয় ভাবে তাদেরকে নিষেধ করা হলেও তাদের থামানো সম্ভব হয়নি। তাদের এই অবৈধ কাজের ফলে মারাত্মক ঝুঁকির মুখে আমাদের এলাকা। এমতাবস্থায় আমরা নিরুপায় হয়ে ইউএনও মহোদয় কে অবহিত করি। স্যার তাৎক্ষনিক ভাবে বালি উত্তোলন বন্ধ ও ড্রেজার বিনষ্ট করায় আমাদের স্বস্তি ফিরে এসেছে।

এবিষয়ে ইউএনও মাসুম রেজা বলেন ড্রেজার দিয়ে নদী থেকে বালি উত্তোলন করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ এবং এটা আমাদের পরিবেশের জন্য অত্যন্ত ঝুকিপূর্ণ এর ফলে নদী ভাঙ্গনের সৃষ্টি হয়। এজন্য ড্রেজারে বিরুদ্ধে আমরা কঠোর অবস্থানে সব সময়। আমাদের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার স্যারের নির্দেশে বিভিন্ন সময়ে কঠোর অভিযান পরিচালনা করার ফলে এর ব্যবহার অনেকাংশে কমে গেছে। তবুও যখন যেকোন সময় কেউ ড্রেজার ব্যবহার করলে সাথে সাথে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

উক্ত অভিযানে উপজেলা প্রশাসনের বিশেষ টিম ও ব্যাটেলিয়ান আনসার বাহিনীর সদস্যরা সহযোগিতা করেন।


Spread the love