আজ মঙ্গলবার, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ১লা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ,রাত ৯:৩৬

আনসার সদস্য জেসমিন নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মৃত্যুপথ যাত্রী সুফিয়াকে উদ্ধার করলেন

 

ফ,ম,আইয়ুব আলী, রূপসা প্রতিনিধিঃ রূপসায় এক নারী আনসার সদস্য নিজের জীবনের ঝুকি নিয়ে মৃত্যুপথ যাত্রী এক মহিলাকে উদ্ধার করে রা করলো তার জীবন। এতেই ক্ষান্ত হয়নি সে। তাকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে তাকে সুস্থ করে তার পরিবারের নিকট হস্তান্তর করে রাত ১০ টায় নিজ বাড়িতে আসেন নারী আনসার সদস্য।আনসার সদস্য হলেন জসমিন আকতার(৩০)। রূপসা উপজেলার ঘাটভোগ ইউনিয়নের আনন্দনগর গ্রামের সাত্তার লস্করের মেয়ে ও জাকির শেখের স্ত্রী। জানাযায়, সোমবার (১৯ অক্টাবর) রূপসা ঘাট থেকে নৌকায় করে খুলনায় যাবার পথে পাশে থাকা নৌকায় একটি মহিলা নৌকায় বিছানো কাঠ ভেঙ্গে পড়ে গিয়ে চিৎকার করছে। তাকে কেউ উদ্ধার করতে এগিয়ে না আসায় জেসমিন দ্রæত লাফিয়ে পড়ে তাকে উদ্ধার করতে যায়।
এসময় দেখতে পাই মহিলাটার দুই পা ও পায়ের উপরের অংশের মাংস নৌকার ইঞ্জিন মেশিনে কেটে টুকরো টুকরো হয়ে গেছে। রক্তাক্ত অবস্থায় আনসার সদস্য জেসমিন ও আরেক যুবক তাকে উদ্বার করে ইজিবাইকে করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। এমনকি নিজের পকেট থেকে টাকা দিয়ে ঔষধ কিনে তার সেবা করেন। দুপুর সাড়ে ১২ টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সে অচেতন অবস্থায় ছিল। পরে উক্ত মহিলা সাভাবিক (জ্ঞান)অবস্থায় ফিরে আসলে তার পরিচয় জানতে পারেন। তিনি হলেন রূপসা উপজেলার নৈহাটি ইউনিয়নের জয়পুর গ্রামের কালাম মুন্সীর স্ত্রী। তার নাম সুফিয়া বেগম(৪৫)। দুই সন্তানের জননী। সে ফারুকের মাতা। জেসমিন ২০১২ সালে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরা বাহিনীতে যোগদান করেন।বর্তমানে সে রূপসা উপজেলার প্লাটুন কমান্ডার হিসেবে কর্মরত রয়েছে। এছাড়া সে অপরাজিতা নারী সংগঠনের সাথে ও ঘাটভোগ ইউনিয়ন যুব মহিলালীগের সভাপতির দায়িত্বে রয়েছেন। এব্যাপারে জেসমিন বলেন, নারীরা সকল কাজে পুরুষের সাথে তালমিলিয়ে দেশ উন্নয়নে অংশ নিচ্ছে।

জেসমিন জানান,অফিসে যাবার পথে নৌকার পাটাতন ভেঙ্গে পড়ে গিয়ে সুফিয়া বেগমের পা মেশিনে জড়িয়ে জখম হয়। তখন আমি দেখতে পাই তার পায়ের মাংশ বাতাসে উড়ছে।
অথচ তার চিৎকারে কেউ এগিয়ে আসেনি। বিষয়টি দেখে আমি ঠিক থাকতে না পেরে তাকে উদ্বার করি।
এমনকি নৌকার মাঝিরা ও তাকে উদ্ধার করেনি বা তার কোন খবর ও নেইনি। এই কি মানবতা।পুরুষের সাথে তাল মিলিয়ে এগিয়ে চলছে নারীরাও মানবতার সেবাই।

     আরো পড়ুন