সকাল ৯:৫৬ । ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ । ১৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ । ৬ই শাওয়াল, ১৪৪২ হিজরি ।

শিরোনামঃ
আশাশুনির পাইথালী বাজারে বিসমিল্লাহ স্টোরে পন্যের এমআরপি থেকে বেশি দামে বিক্রির প্রমান মিলেছে রূপসা নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে সাংবাদিকদের মত বিনিময় ফেরি ঘাটে নেই যাত্রী ভোগান্তি,যাত্রীদের নেই স্বাস্থ্য বিধি মানার বালাই  মধুখালীতে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালন ফরিদপুরে আশাশুনিতে এক ডজন মাদক মামলার আসামীর ওসি’র নিকট আত্নসমর্পন  আশাশুনিতে  স্বপ্ন ছোঁয়ার প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন আশাশুনি উপজেলা সড়কে দুরাবস্থা দেখার কেউ নাই আশাশুনিতে গৃহহীনদের গৃহ ও জমি প্রদান যথাযথ ভাবে হচ্ছে: উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তাকিম আশাশুনি থানা পুলিশের অভিযানে আটক ৪ জেলা যুবলীগের আহ্বায়ককে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা বিনিময় জেলা রেন্ট এ কার ইউনিয়ন নেতাদের ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য : মধুখালীতে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধুর আত্মহত্যা রূপসায় কৃষকলীগ নেতাকর্মীদের মাঝে খাদ্য সহয়তা ও ঈদ সামগ্রী বিতরণ জেলা পুলিশের প্রেস ব্রিফিং ঈদের পরদিনও যাত্রীর চাপ দৌলতদিয়া ফেরি ঘাটে বাবা ও ছেলে দু’জন গেলেন বাঘের পেটে কন্ঠশিল্পী রশীদ আহমেদ তিতু’র প্রথম মৃত্যু বাষির্কী আজ ফরিদপুর জেলা যুবলীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় আব্দুর রহমান‘ শেখ হাসিনার মত বিচক্ষণ নেতৃত্ব আছে বলেই আমরা পিট বাঁচিয়ে চলতে পারছি শেখ হাসিনার সরকার দেশ থেকে মাদক, জঙ্গী, সন্ত্রাস ও দুর্নিতির মূলৎপাটন করতে সর্বদা বদ্ধ পরিকর :রূপসায় জুম কনফারেন্সে অব্দুস সালাম মূর্শেদী আলফাডাঙ্গায় সাংবাদিক সেকেন্দার আলমের উপর সন্ত্রাসী হামলার মামলায় থানায় ৪ জন গ্রেফতার! আদালতে প্রেরণ রূপসায় অধ্যাপক চাইনিজের উদ্যোগে কর্মহীন মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী, ঈদ পোষাক এবং নগদ অর্থ বিতরণ  দৌলতদিয়া থেকে পণ্য পরিবহনের গাড়ীতে বাড়ী পথে যাত্রীরা  রাজবাড়ীতে এমপি জিল্লুল হাকিমের ঈদ উপহার সামগ্রী পেল ১২ হাজার পরিবার  খুলনা সদর থানার এসআই আবু সাঈদের বিরুদ্ধে ব্যবসায়ী হয়রানীর অভিযোগ ভৈরব নদীতে নেঙ্গর করা তেলবাহী জাহাজ থেকে নিয়মিত তেল চুরি হচ্ছে দিঘলিয়ায় বিএনপি নেত্রীর সুস্থতা কামনায় অসহায় মানুষের মাঝে ঈদ উপহার প্রদান দিঘলিয়ায় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে জেলা আওয়ামিলীগ সম্পাদকের ঈদ উপহার প্রদান ফরিদপুর জেলা আওয়ামীলীগের ঈদ উপলক্ষে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ ঈদ বাজার ঘুরে মাক্স বিতরণ করছেন বোয়ালমারী পৌর মেয়র ১২ নং ওয়ার্ড নাগরিক কমিটির উদ্যোগে মেয়র অমিতাভ বোস এর পক্ষ থেকে হতদরিদ্র দের মধ্যে ঈদের শুভেচ্ছা বিতরণ

আশায় বুক বেঁধে আছে পাটকল শ্রমিকরা

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বি এম রাকিব হাসান, খুলনা: শিল্পাঞ্চল নামে খ্যাত খুলনার নিউজপ্রিন্ট মিল ও হার্ডবোর্ড মিল বন্ধ হয়ে গেছে বেশ আগে। যে চারটি রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল ছিল তাও স¤প্রতি বন্ধ হওয়ায় খুলনা মহানগরীর খালিশপুর এলাকা ছেড়ে অন্যত্র চলে যাচ্ছেন মানুষ। আর এতে মৃতপ্রায় অঞ্চলে পরিণত হচ্ছে ‘খুলনার শিল্পাঞ্চল’। তবে পাটকলগুলো চালু হবে, এমন আশায় বুক বেঁধে আছেন শ্রমিকরা।
বাংলাদেশ পাটকল করপোরেশন (বিজেএমসি) সূত্রে জানা গেছে, খুলনা অঞ্চলের রাষ্ট্রায়ত্ত ৯টি পাটকলের মধ্যে খালিশপুরে চারটি ও ভৈরব নদের ওপর পাড়ে দিঘলিয়ায় একটি পাটকল রয়েছে। এছাড়া ফুলতলার আটরা শিল্প এলাকায় দুটি ও যশোরে দুটি পাটকল রয়েছে।
মিল এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, সবখানে ফাঁকা। এক সময় মিলের খট খট শব্দ আর শ্রমিকদের পদচারণায় মুখর থাকত যে এলাকা সেখানে বিরাজ করছে ভুতুড়ে পরিবেশ।
আশপাশে থাকা কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, আবাসিক শ্রমিকদের জন্য গোল্ডেন হ্যান্ডসেকের টাকা নেওয়ার অন্যতম শর্ত ছিল ঘর-বাড়ি পুরোপুরি ভেঙে মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দিয়ে কর্তৃপক্ষকে জায়গাটি বুঝিয়ে দিতে হবে। এ কারণে টাকা পাওয়ার আশায় সবাই নিজেদের ঘরগুলো ভেঙে ট্রাকে করে সেখান থেকে প্রয়োজনীয় মালামাল নিয়ে চলে গেছেন। বেশিরভাগই গেছেন গ্রামের বাড়িতে।
খুলনা ক্রিসেন্ট জুট মিলের প্রধান গেটের সামনে দাঁড়িয়ে শোনা যাচ্ছে ঘর ভাঙার শব্দ। পশ্চিম কলোনির দিকে যেতেই চোখে পড়ে কয়েকজন মিলে শাবল, কোদাল আর হাতুড়ি দিয়ে ১৩ নম্বর ভবনের নিচের একটি পাকা ঘর ভাঙার চেষ্টা করছেন। যার ঘর ভাঙা হচ্ছে তিনি মিলের মেকানিক্যাল বিভাগের শ্রমিক ফিরোজ কবির।
তিনি ৩৫ বছরের চাকরি জীবনের ২০ বছরেরও বেশি সময় ধরে ওই ভবনে বাস করেছেন। হ্যান্ডসেকের টাকা পেতে ঘর ভেঙে কর্তৃপক্ষকে বুঝিয়ে দিতে হবে এ কারণে তা ভাঙছেন। দুই ছেলে ও এক মেয়ে সবাই ওই ঘরে বড় হয়েছেন। বর্তমানে তিনি খালিশপুরের কবির বটতলা এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় আছেন। যে টাকা পাওয়া যাবে তা দিয়ে ছোটখাটো ব্যবসা করার পরিকল্পনা রয়েছে তার।
ফিরোজ কবির বলেন, মিল কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে আমি নিজের জিনিস নিয়ে চলে যেতে পারব। সে কারণে আমার ঘর ভেঙে নিয়ে যাচ্ছি। কিন্তু কোম্পানির কোনো সুতাও আমি নিতে পারব না।
শ্রমিকদের অবস্থার কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, পাঁচ মাস হয়ে গেছে। যাদের ছেলে-মেয়ে একটু বড়, চাকরি করে তারা টিকে আছে। যাদের ছেলে মেয়ে চাকরি করে না তাদের যে কি অবস্থা আল্লাহ ছাড়া কেউ জানে না। বহু লোকের আহাজারি রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী মিল চালুর চেষ্টা করছেন। কিছু আমলার কারণে, কিছু পরিস্থিতির কারণে মিলগুলো বন্ধ হয়ে গেল। এই মিল কোনো দিনও বন্ধ হওয়ার কথা না, মিলে লাখ লাখ টাকা লাভ হওয়ার কথা ছিল।
খুলনা শিপইয়ার্ড লসে লসে জর্জরিত হয়ে গেছিল। নৌবাহিনী দায়িত্ব হাতে নেওয়ার পর এখন কোটি কোটি টাকা লাভ হচ্ছে। এই মিলগুলো একটা দায়িত্ববান লোকের হাতে দিলে এখনও কোটি কোটি টাকা লাভ হবে। যাকে মিল পরিচালনার দায়িত্ব দেওয়া হবে তাকেই লাভ-ক্ষতি বুঝিয়ে দিতে হবে। মিলগুলো সেনাবাহিনী ও নৌবাহিনীর হাতে দিলে আরও ভাল হয়। এই দুই বাহিনীর হাতে দিলে মিল পানির মতো চলবে।
ক্রিসেন্ট জুট মিলের শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা হেমায়েত উদ্দীন আজাদী বলেন, সরকারের কথা ছিল মিলকে আধুনিকায়ন করে চালু করবেন। পাটমন্ত্রী বলেছিলেন, তিন মাসের মধ্যে মিল চালু করা হবে। এটা শোনার পর শ্রমিকরা আশায় বুক বেঁধেছিলেন। কিন্তু মিল না খোলায় শ্রমিকরা হতাশ।
অনেক শ্রমিক বাসা ভাড়া করে অপেক্ষায় আছে মিল কবে চালু হবে, তারা কর্মসংস্থান পাবে। আমরা চাই সরকারি সম্পদ সরকারের হাতে থাকুক। সরকারের হাতে থেকেই মিলটি চালু হোক।


Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *