Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সজীব মোল্লা ,মধুখালী প্রতিনিধিঃ ফরিদপুরের মধুখালীর ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের পাট বাজার মোড়ে রোড ডিভাইডার নির্মাণ করা হয়। কিন্তু সড়ক ও জনপথ বিভাগের ডিভাইডারটি নির্মাণের পর থেকে নিয়মিত সড়ক দুর্ঘটনার পাশাপাশি যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। ডিভাইডার যেন মৃত্যুর ফাঁদে পরিনত হয়েছে।

বুধবার বেলা সাড়ে আটটায় একটি ট্রাক ডিভাইডারটির উপর দিয়ে চালিয়ে দিলে ভয়াবহ দুর্ঘটনার সৃষ্টি হয় ।
স্থানীয়রা বলছেন সড়ক দুর্ঘটনা রোধে তৈরি করা ডিভাইডার যেনো মৃত্যুর ফাঁদে পরিণত হয়েছে। এটি দ্রুত অপসারণ করা দরকার। ঢাকা-খুলনা ও মধুখালী-বালিয়াকান্দী আঞ্চলিক সড়কের মিলিতস্থান হওয়ায়
বিভিন্ন গাড়ি ও পাট বাজারের চাপ থাকে। ডিভাইডারটি নির্মাণের পর থেকে অর্ধশতাধিক ছোট-বড় দুর্ঘটনা ঘটেছে। রোগীবাহী অ্যাম্বুলেন্স, ট্রাক, বাস, মাইক্রো, মটোরসাইকেল সহ বিভিন্ন যানবাহন দূর্ঘটনার শিকার হচ্ছে। সড়ক ও জনপথ বিভাগ সতর্কীকরণ সাইনবোর্ড টানালেও ডিভাইডারের কোনো প্রান্তেই নেই স্পিড
ব্রেকার ও জেব্রাক্রসিংয়ের চিহ্ন ।ডিভাইডার অপসারণ বা ত্রুটি সমাধানের বিষয়ে জানতে চাইলে ফরিদপুর সড়ক ও জনপথ বিভাগের দায়িত্বরত প্রকৌশলী বলেন, বর্ষা মৌসুম শেষেই ডিভাইডারের উভয় প্রান্তে মহাসড়কের প্রশস্ততা বৃদ্ধির পাশাপাশি ডিভাইডারটি কিছুটা ছোট করা হবে।অবশ্য উত্তর পাশে পাটবাজার মুখী ছোট ডিভাইডারটি ভেঙ্গে দেওয়া হয়েছে। এটিকে আর একটু ছোট করলে খুব সহজেই যানবাহন টার্ন নিতে পারবে এবং দুর্ঘটনা কমে যাবে।মধুখালীউপজেলা চেয়ারম্যান মো. শহিদুল ইসলাম ডিভাইডার অপসারনে
বলেন, ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের মধুখালী পাট বাজারের সামনে জনগণের মঙ্গলের জন্য ডিভাইডার স্থাপন করা হলেও সেটা মৃত্যুর ফাঁদের কারন হয়ে দাড়িয়েছে বিষয়টি অনুধাপন করেই জেলা প্রশাসককে ডিভাইডারটিঅপসারনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের অনুরোধ করেছি। সে মোতাবেক তিনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে আস্থত করেছেন । স্থানীয়দের দাবী ডিভাইডারটি দ্রুত অপসারণ করা হোক।


Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •