Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বোয়ালমারী প্রতিনিধি: ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্যবিবাহের হাত থেকে রক্ষা পেলো ১৪ বছর বয়সী এক কিশোরী। শুক্রবার (২২ অক্টোবর) বিকাল ৪টার দিকে উপজেলার পরমেশ্বরদী ইউনিয়নের জয়পাশা গ্রামের মজিবুর রহমানের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

বাল্যবিবাহ হচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নির্বাহী ম্যাজিস্টেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মারিয়া হক ওই বাড়িতে হাজির হয়ে বন্ধ করে দেন বাল্য বিবাহের আযোজন।

জানা যায়, ওই কিশোরীর শুক্রবার বিয়ে হওয়ার কথা ছিল উপজেলার চতুল ইউনিয়নের বড় বাইখীর গ্রামের আতিয়ার মোল্লর ছেলে সোহেল মোল্লার (২৫) সাথে। খবর পেয়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মারিয়া হক বিয়ের প্রস্তুতিকালে কিশোরীর বাড়ি উপস্থিত হয়ে বাল্যবিয়ে বন্ধ করে দেন। একই সঙ্গে বর ও কনেপক্ষকে জরিমানা করেন।

অপ্রাপ্তবয়স্ক মেয়েকে বিয়ে দেয়ায় উদ্যোগ নেওযায় বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন ২০১৭ এর ৭ ধারায় মেয়ের বাবাকে ৭ হাজার এবং অপ্রাপ্তবয়স্ক মেয়েকে বিয়ে করার উদ্যোগ নেওয়ায় ছেলে সোহেল মোল্লাকে একই আইনের ৮ ধারায় ৮ হাজার টাকাসহ মোট ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এ ব্যাপারে বোয়ালমারী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মারিয়া হক বলেন, বর ও কনে উভয়পক্ষকেই জরিমানা করা হয়েছে। তিনি বলেন, ওই সময় ওই কিশোরীর বাবা এবং ছেলের কাছ থেকে যথাক্রমে প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত মেয়ের বিয়ে দেবে না, প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত মেয়েকে বিয়ে করবো না মর্মে মুচলেকা নেওয়া হয়।


Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •