Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মিঠুন গোস্বামী, রাজবাড়ীঃ দেশের বিভিন্ন স্থানে সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে গণঅবস্থান কর্মসূচি পালন করছে বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ রাজবাড়ী জেলা শাখা।

শনিবার (২৩ অক্টোবর) সকাল ৬টা থেকে শহরের রেলগেট এলাকার বটতলায় এই গণ-অনশন কর্মসূচি পালিত হয়।

এই অবস্থান কর্মসূচি দুপুর ১২টা পর্যন্ত চলে।পরে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী ইরাদত আলী পানি পান করিয়ে হিন্দু নেতাদের অনশন ভঙ্গ করান।

এরপর সেখান থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি রাজবাড়ী শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুনরায় রেলগেটে এসে শেষ হয়।

এ সময় রাজবাড়ী জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী ইরাদত আলী বলেন, “যারা এই আক্রমণ চালিয়েছে, তারা ধর্মান্ধ, জঙ্গি, সন্ত্রাসী এবং এই আক্রমণ ছিল পরিকল্পিত।তারা পাকিস্তান পন্থায় বিশ্বাস করে, তারা একাত্তরের রাজাকারদের সাথে সম্পৃক্ত, জামায়াতে ইসলামীর সাথে সম্পৃক্ত ও সম্পর্কিত এবং বিএনপির সাথে তারা সম্পৃক্ত। বিএনপি রাজাকার, যুদ্ধাপরাধী ও ধর্মান্ধদের ছাতা ধারাবাহিকভাবে ধরে রেখেছে এবং এরফলে জটিল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।

গণ-অবস্থানে বক্তারা বলেন, আমরা এই দেশের নাগরিক। এটাই আমাদের প্রধান ও প্রথম পরিচয়। স্বাধীন দেশে স্বাধীনভাবে আমরা আমাদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব পালন করব।

গণ-অনশন ও অবস্থান কর্মসূচীতে অন্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন রাজবাড়ী পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি উজির আলী শেখ, হিন্দু খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি গনেশ নারায়ণ চৌধুরীসহ প্রমুখ।


Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •